দুপুর ১:৫৮, রবিবার, ২২শে জানুয়ারি, ২০১৭ ইং
/ অনূর্ধ্ব ১৯ বিশ্বকাপ / নেতৃত্ব উপভোগ করেন মিরাজ
নেতৃত্ব উপভোগ করেন মিরাজ
ফেব্রুয়ারি ৪, ২০১৬

যুবাদের সবচেয়ে বড় আসর অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে টানা দু’বার কোন দলকে নেতৃত্ব দেয়ার বিরল রেকর্ড গড়েছেন বাংলাদেশের অধিনায়ক মেহেদী হাসান মিরাজ। ব্যক্তিগত মাইলফলকেও আগের ম্যাচে ছাড়িয়ে গেছেন সবাইকে। যুব ওয়ানডে ক্রিকেটে হয়েছেন সর্বোচ্চ উইকেটের মালিক। ব্যাক্তিগত অর্জনের সঙ্গে এবার দলগতবভাবে ইতিহাসের সামনে এ ক্ষুদে টাইগার। আগামীকাল (শুক্রবার) নেপালকে হারাতে পারলেই প্রথমবারের মতো যুব বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল খেলার সুযোগ পাবে বাংলাদেশ। মিরাজের তুখোড় নেতৃত্বে দারুণ সাফল্যের মাঝেই রয়েছে বাংলাদেশের যুবারা। আর দলকে নেতৃত্ব দেওয়াটা উপভোগ করেন বলেও জানান তিনি।
বৃহস্পতিবার মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামের একাডেমী মাঠে অনুশীলন শেষে বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক বলেন, ‘নেতৃত্ব খুবই উপভোগ করি। খেলোয়াড়রা সবাই দারুন সহায়তা করে। সিনিয়রদের মধ্যে যেমন শান্ত-ইমন-জাকির, পাশাপাশি জুনিয়ররাও সহায়তা করে। দলের সবাই পারফর্ম করছে। অধিনায়ক হিসেবে এটাই চাই, সবাই পারফর্ম করবে, দল ভালো করবে। অধিনায়ক হিসেবে আমি ভালো খেললে এবং দলের সবাই পারফর্ম করলে ভালো ফল পাবো।’
তবে ওপেনিং ব্যাটসম্যানদের নিয়ে কিছুটা দুশ্চিন্তায় রয়েছে বাংলাদেশ শিবির। মিরপুরের পরিচিত উইকেটে তারা জ্বলে উঠতে পারবে বলে আশা করছেন মিরাজ। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘আমরা খেলি দলীয় পরিকল্পনা অনুযায়ী। কক্সবাজারের উইকেট মন্থর দেখে দলের পরিকল্পনা ছিল, ওপেনারদের ধীর-লয়ে খেলতে হবে। উইকেট যেন বিলিয়ে দেয়া না হয়। সাইফ-ইমন ওভাবেই খেলেছে। এখানে উইকেটটা ভিন্ন হতে পারে। এখানে আমরা অভ্যস্ত। উইকেট ভালো থাকলে শুরুর দিকে ব্যাটসম্যানরা হয়তো শট খেলবে। রান তোলার চেষ্টা করবে।’
দলের সবাই দেশের সম্মানের কথা ভেবেই খেলে বলে জানান মিরাজ। তাই মাঠে শতভাগ দিতে বদ্ধপরিকর ক্ষুদে টাইগাররা। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘যেহেতু দেশের প্রতিনিধিত্ব করছি, সবাই প্রত্যাশা করছে সে অনুযায়ী খেলতে হবে। তবে এতে চাপ ঠিক নয়, চেষ্টা থাকবে নিজেদের সেরাটা দেওয়ার। যদি নাও হয়, তাহলে তো কিছু করার নেই। তবে আমরা আমাদের শতভাগ দেওয়া চেষ্টা করব।’



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :