রাত ১২:৪৪, সোমবার, ৩০শে এপ্রিল, ২০১৭ ইং
/ এসএ গেমস / টিটিতে ব্রোঞ্জ ও ফুটবলে মহিলা দলের জয়
টিটিতে ব্রোঞ্জ ও ফুটবলে মহিলা দলের জয়
ফেব্রুয়ারি ৭, ২০১৬

কবিরুল ইসলাম, গোহাটি থেকে : এসএ গেমসে নিজেদের প্রথম ম্যাচেই হারতে হয়েছিল মহিলা ফুটবলারদের। নেপালে কাছে ৩-০ গোলে বিধ্বস্ত হয়েছিল গোলাম রব্বানী ছোটনের শিষ্যরা। তবে দ্বিতীয় ম্যাচেই ঘুঁড়ে দাঁড়িয়েছে লাল-সবুজ জার্সীধারীরা। কৃষ্ণা রানীর জোড়া গোলে শ্রীলঙ্কাকে ২-১ গোলে হারিয়েছে তারা। রোববার শিলংয়ে এ জয়ের দেখা পায় তারা।

লঙ্কান মেয়েদের বিপক্ষে মাঠে নেমে শুরু থেকেই আক্রমনাতœক খেলতে শুরু করেছিল বাংলাদেশের মেয়েরা। কিন্তু তাতে গোলের সুবিধা আদায় করতে পারেনি সাবিনা-কৃষ্ণারা। তবে, দ্বিতীয়ার্ধে ঠিকই গোলের দেখা পেয়েছে ছোটনের শিষ্যরা। ম্যাচের ৬৯ মিনিটে কৃষ্ণার দারুন এক গোলে এগিয়ে যায় বাংলাদেশ (১-০)। উৎসবে মেতে উঠেছিল লাল-সবুজরা। কিন্তু পরের মিনিটেই তাদের হাসি এক নিমিষেই মিলিয়ে যায় দ্বীপ দেশটি ম্যাচে সমতা ফিরিয়ে আনলে (১-১)। ম্যাচ শেষ হওয়ার মিনিট ছয় আগে আবারো প্রতিপক্ষের জালে বল ঠেলে দিয়ে বাংলাদেশের জয় নিশ্চিত করেন কৃষ্ণা (২-১)।

টেবিল টেনিসের মহিলা দলগত ব্রোঞ্জ

টেবিল টেনিসে সেমিফাইনালে উঠেছে বাংলাদেশ মহিলা দল। শিলংয়ে অনুষ্ঠিত কোয়ার্টার ফাইনালে বাংলাদেশের মৌমিতা আলম রুমি, রাইমা আক্তার ও শারমিন আক্তার মিনারা ৩-২ সেটে নেপালকে হারায়। এতে ব্রোঞ্জ নিশ্চিত হয় বাংলাদেশে। তবে পুরুষ বিভাগে বাংলাদেশের মানস চৌধুরী, মাহাবুব বিল্লা এবং মোঃ ইমরান হোসেন ৩-০ সেটে হারে নেপালের কাছে হেরে যান।

কুস্তিতে হতাশা

কুস্তিতে পদক লড়াইয়ের প্রথম দিন একটি রৌপ্য পদক জয়ের পর অনেকেই আশায় বুক বেঁধে রেখেছিলেন দ্বিতীয় দিনে আরও ভালো কিছুর। কিন্তু হতাশ করেছেন দেশের কুস্তিগিররা। স্বর্নতো দূরের কথা, রৌপ্যও জয় করতে পারেননি তারা। দিন শেষে মাত্র তিনটি ব্রোঞ্জ নিয়ে সন্তুষ্ঠ থাকতে হয়েছে তাদের। মেয়েদের ৫৩ কেজি ওজন শ্রেনীতে নাসিমা আক্তার ও ৫৮ কেজি ওজন শ্রেনীতে তানজিনা মাসুদি এবং পুরুষদের ফ্রি স্টাইল ৮৬ কেজি ওজন শ্রেনীতে রেহমান মোহাম্মদ ব্রোঞ্জ পদক জয় করেছেন।

টেনিসে মিশ্র এক দিন

রোববার টেনিস ডিসিপ্লিনটি মিশ্রভাবে শেষ করেছে বাংলাদেশ। পুরুষদের দ্বৈত বিভাগে অমল রায় ও রঞ্জন রাম আফগানিস্তানের ফিরোজ আহম্মেদ ও গাফুরি ফরিদকে পরাস্ত করেছেন ৬-০, ৬-১ সেটে। একই বিভাগে দীপু লাল ও আনোয়ার হোসেন হেরেছেন ভারতের রনাথন রামকুমার ও বিজয় সুন্দরের কাছে। স্বাগতিকরা জয় পান ৬-০, ৬-২ সেটে।

মিক্সড ডাবলসের দুটি ইভেন্টের মধ্যে একটিতে জয় একটিতে হেরেছে বাংলাদেশ। রঞ্জন রাম ও আফরানা ইসলাম জুটি ধরাশায়ী করেছেন ভদ্রয় কামাল ও শর্মা গাংগেকে। নেপালের এ জুটির বিরুদ্ধে ৪-৬, ৬-৪ ও ১০-৫ গেমে জয় পান তারা। একই ইভেন্টে হেরেছেন অমল রায় ও ইশিতা আফরোজ জুটি। তারা শ্রীলঙ্কান জুটি গুদামানা হারসানা ও মুঠিয়া অ¤্রথিার কাছে ৬-০, ৬-১ সেটে পরাস্ত হয়েছেন। মহিলাদের একক ইভেন্টে খুব বাজে একটি দিন পাড় করেছে বাংলাদেশ। পাকিস্তানের মনসুর সারাহর কাছে সরাসরি ৬-০, ৬-০ সেটে শাহলক্ষ্মী সাফিনা এবং শ্রীলঙ্কার ওয়াদুগি নিথমির কাছে আফরিনা ইসলাম প্রিতি হেরেছেন ৬-২, ৬-২ সেটে।

পাঁচ ডিসিপ্লিনে পাকিস্তান ভিসা পায়নি

সাউথ এশিয়ান (এসএ) গেমসের ১২তম আসরকে ঘিরে এখন আসামের গৌহাটি শহর বিদেশী খেলোয়াড়, কর্মকর্তা ও সাংবাদিকদের পদচারণায় মুখরিত। নানা অব্যবস্থাপনার মাঝেও এসএ গেমসকে নিয়ে সবার মাঝেই রয়েছে আগ্রহ। তবে পাকিস্তানের ক্ষেত্রে ভারত সরকার যেন কিছুটা কঠোর। তাই তো গৌহাটি-শিলং এসএ গেমসের পাঁচ ডিসিপ্লিনে অংশগ্রহণকারী পাকিস্তানের ১৭জন খেলোয়াড় ও কর্মকর্তাদের ভিসা দেয়নি ভারতীয় কর্তৃপক্ষ। তবে কি কারনে ভিসা দেয়া হয়নি,তা জানা যায়নি। ইভেন্টগুলো হলো- স্কোয়াশ, কাবাডি, টেবিল টেনিস,কুস্তি ও জুডো। চলমান আসরে সর্বমোট ৩৩৭ জন খেলোয়াড় ও কর্মকর্তার উপস্থিত থাকার কথা ছিলো। কিন্তু ১৭জন খেলোয়াড় ও কর্মকর্তাকে ভিসা না দেয়ার কারনে সেই সংখ্যা কিছুটা হলেও কমে গেছে পাকিস্তান দলের।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :