রাত ১১:০৩, বুধবার, ২৯শে মার্চ, ২০১৭ ইং
/ হকি / ওয়ালটন তৃতীয় জাতীয় মহিলা হকি শুরু
ওয়ালটন তৃতীয় জাতীয় মহিলা হকি শুরু
ফেব্রুয়ারি ২৯, ২০১৬

দেশের স্বনামধন্য ইলেকট্রিক্যাল, ইলেকট্রনিকস, অটোমোবাইলস, হোম অ্যাপ্লায়েন্স ও টেলিকমিউনিকেশন পণ্য প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান ওয়ালটনের পৃষ্ঠপোষকতায় সোমবার (২৯ ফেব্রুয়ারি) থেকে শুরু হয়ছে ‘ওয়ালটন তৃতীয় জাতীয় মহিলা হকি-২০১৬।’ এই প্রতিযোগিতা চলবে ৬ মার্চ পর্যন্ত।
বিকেলে মওলানা ভাসানী হকি স্টেডিয়ামে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করেন পৃষ্ঠপোষক প্রতিষ্ঠান ওয়ালটন গ্রুপের স্পোর্টস অ্যান্ড ওয়েলফেয়ার বিভাগের প্রধান ও সিনিয়র এডিশনাল ডিরেক্টর এফ.এম. ইকবাল বিন আনোয়ার (ডন)।
এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ হকি ফেডারেশনের সহ-সভাপতি খাজা রহমতউল্লাহ, ওয়ালটন গ্রুপের এজিএম মেহরাব হোসেন আসিফ, টুর্নামেন্ট কমিটির সম্পাদক আনভীর আদিল খানসহ ফেডারেশনের অন্যান্য সদস্যবৃন্দ।
উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ওয়ালটন গ্রুপের কর্মকর্তা এফ.এম. ইকবাল বিন আনোয়ার এক বক্তব্যে বলেন, ‘আমরা প্রায় সবগুলো ফেডারেশনের সঙ্গে যুক্ত হওয়ার চেষ্টা করি। এর আগেও আমরা জাতীয় মহিলা হকির সঙ্গে সম্পৃক্ত হয়েছিলাম। আসলে ওয়ালটন গ্রুপ নারীর ক্ষমতায়ন ও অংশগ্রহণে বিশ্বাসী। সে কারণে নারীদের বিভিন্ন টুর্নামেন্টে আমরা জোর দেওয়ার চেষ্টা করি। আশা করছি এই টুর্নামেন্টের মাধ্যমে ভালো কিছু খেলোয়াড় উঠে আসবে। যারা এক সময় জাতীয় দলের হয়ে খেলবে।’
তিনি আরও যোগ করেন, ‘হকি ফেডারেশনের কাছ থেকে আরো বেশ কিছু প্রস্তাব পেয়েছি আমরা। ওয়ালটনের পৃষ্ঠপোষকতায় এরপর হকি ফেডারেশনের সর্বোচ্চ আসর ফেডারেশন কাপ ও ক্লাব কাপ হকি টুর্নামেন্ট আয়োজন করবো। ওয়ালটনের মতো আরো যারা কর্পোরেট হাউস রয়েছে তারা এগিয়ে আসলে অচিরেই আগের মতো হকির সুদিন ফিরে আসবে।’
জাতীয় ক্রীড়া পুরস্কারের কোনো এক ক্যাটাগরিতে পৃষ্ঠপোষক প্রতিষ্ঠানের জন্য পুরস্কার চালু করার বিষয়টি উল্লেখ করে ইকবাল বিন আনোয়ার বলেন, ‘আমি আগেও বলেছি। আবারও বলছি। জাতীয় ক্রীড়া পুরস্কারের কোনো একটি ক্যাটাগরিতে পৃষ্ঠপোষক প্রতিষ্ঠানের জন্য পুরস্কারের ব্যবস্থা করলে ক্রীড়াঙ্গনে পৃষ্ঠপোষকতায় আরো অনেক প্রতিষ্ঠান এগিয়ে আসবে। বিষয়টি আমাদের মাতৃতুল্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর বিবেচনার অনুরোধ থাকল।’
বাংলাদেশ হকি ফেডারেশনের সহ-সভাপতি খাজা রহমতউল্লাহ বলেন, ‘ওয়ালটন গ্রুপ এর আগেও জাতীয় মহিলা হকিতে পৃষ্ঠপোষকতা করেছে। আবারও তারা হকির পৃষ্ঠপোষকতা করতে এগিয়ে আসায় ওয়ালটন গ্রুপকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি। আশা করব ভবিষ্যতেও তারা হকির পাশে থাকবে। হকির উন্নয়নে অবদান রাখবে।’
এবারের ওয়ালটন তৃতীয় জাতীয় মহিলা হকি টুর্নামেন্টে ৯টি দল অংশ নিয়েছে। ৯টি দলকে ৩টি গ্রুপে ভাগ করে প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হবে। দলগুলো হল- নড়াইল জেলা, রংপুর জেলা, কিশোরগঞ্জ জেলা, দিনাজপুর জেলা, পটুয়াখালী জেলা, ঝিনাইদহ জেলা, ঢাকা জেলা, রাজশাহী জেলা ও ঠাকুরগাও জেলা।
উদ্বোধনী ম্যাচে নড়াইল জেলা ও কিশোরগঞ্জ জেলা মুখোমুখি হয়। ম্যাচটি সরাসরি সম্প্রচার করে এটিএন বাংলা। কিমি কর্মকারের একমাত্র গোলে কিশোরগঞ্জকে ১-০ গোলে হারায় ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন নড়াইল। এছাড়া দিনের অন্যান্য ম্যাচের মধ্যে ঢাকা জেলাকে ১-০ গোলে ঠাকুরগাঁও ও দিনাজপুর-ঝিনাইদাহর মধ্যকার ম্যাচটি গোলশূন্য ড্র হয়।
এবারের ওয়ালটন জাতীয় মহিলা হকিতে ১ লাখ টাকা প্রাইজমানি থাকছে। টুর্নামেন্টের চ্যাম্পিয়ন দল ট্রফি ও ৬০ হাজার টাকা প্রাইজমানি পাবে। আর রানারআপ দল ট্রফি ও ৪০ হাজার টাকা প্রাইজমানি পাবে। এছাড়া টুর্নামেন্টের বিভিন্ন ক্যাটাগরির সেরা পাঁচজন খেলোয়াড়কে ওয়ালটনের হোম অ্যাপ্লায়েন্স দিয়ে উৎসাহিত করা হবে।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :