বিকাল ৫:৫১, শনিবার, ২৭শে মে, ২০১৭ ইং
/ ক্রিকেট / এশিয়া কাপে মাশরাফিদের ব্যাটিং নিয়ে দুশ্চিন্তা
এশিয়া কাপে মাশরাফিদের ব্যাটিং নিয়ে দুশ্চিন্তা
ফেব্রুয়ারি ১৯, ২০১৬

ওয়ানডে ক্রিকেটেই গত ব্ছর যা উন্নতি করেছে বাংলাদেশ। অন্য যে কোন ফরম্যাটের চেয়ে এই ফরম্যাটেই অভাবনীয় উন্নতি মাশরাফিদের। কিন্ত যখনই টি-২০ ফরম্যাটের কথা সামনে চলে আসে, তখনই তৈরী হয় একরাশ প্রশ্ন, এই ফরম্যাটে কেমন করবে বাংলাদেশ? কারণ, এই একটি ফরম্যাটে প্রতিনিয়ত ওঠা-নামা করে বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের পারফরম্যান্স।
দেখতে দেখতে আরেকটি এশিয়া কাপ চলে এলো একেবারে দুয়ারে। বলা যায় দরজায় কড়া নাড়ছে এশিয়ার শ্রেষ্ঠত্বের এই টুর্নামেন্ট। যেটা আবার প্রথমবারের মত অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে। সুতরাং, চিন্তার বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে এই টুর্নামেন্টে কেমন করবে বাংলাদেশ!
শঙ্কাটা তৈরী হয়েছে মূলতঃ হার্ডহিটার ওপেনার তামিম ইকবালের অনুপস্থিতি। টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে দারুন ফর্মে ছিলেন এই ড্যাশিং ওপেনার। বিপিএল কিংবা পিএসএল যাই বলুন, অসাধারণ খেলেছেন তিনি। সর্বশেষ জিম্বাবুয়ের বিপক্ষেও সিরিজে ছিলেন উজ্জল পারফরমার; কিন্তু খুব দ্রুতই প্রথম সন্তানের জনক হচ্ছেন তামিম। যে কারণে স্ত্রীর পাশে থাকতে তিনি চলে যাচ্ছেন ব্যাংকক। পরিবর্তে নেয়া হয়েছে ইমরুল কায়েসকে। তামিম না থাকাতেই এশিয়া কাপে বাংলাদেশ দলের ব্যাটিং নিয়ে দুশ্চিন্তায় পড়ে গেছেন নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু।
তিনি বলেন, `যদিও আমরা ব্যাটিং নিয়ে কিছুটা দুশ্চিন্তায় রয়েছি। তবে আমাদেরকে ইমরুলের ওপর আস্থা রাখতেই হবে। আমরা আশা করবো পুরো দলই সেরা খেলাটা উপহার দেবে। তবুও তামিম ইকবালের অনুপস্থিতিটা একটা বড় অভাব। কারণ, সে দারুণ ফর্মে ছিল।`
পিএসএলের প্রথম ম্যাচে দারুন পারফরম্যান্স দেখিয়েছিলেন সাকিব আল হাসান। কিন্তু পরের ম্যাচগুলোতে ছিলেন একেবারে নিষ্প্রভ। ৮ ম্যাচ খেলে মাত্র ৩ উইকেট এবং ১২৬ রান করেছেন তিনি। এর মধ্যে প্রথম ম্যাচেই করেছিলেন ৫১ রান। তাকে নিয়ে নান্নু বলেন, `সাকিব এখন সঠিক ফর্মে নেই। মুশফিক পর্যাপ্ত সুযোগ পায়নি নিজেকে প্রমাণ করার। তবুও তারা অভিজ্ঞ পারফরমার। তারা জানে কিভাবে সময়মত জ্বলে উঠতে হয়। আমরা আশা করবো, এশিয়া কাপে আবারও তারা ফর্মে ফিরে আসবে।`



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :