সন্ধ্যা ৭:৩৭, শুক্রবার, ২৩শে জুন, ২০১৭ ইং
/ আর্ন্তজাতিক / স্পোর্তিংয়ের জালে রোনালদো-বেল-বেনজেমার গোল উৎসব
স্পোর্তিংয়ের জালে রোনালদো-বেল-বেনজেমার গোল উৎসব
জানুয়ারি ১৮, ২০১৬

জিনেদিন জিদানের অধীনে টানা দ্বিতীয় ম্যাচে জ্বলে উঠে গোল পেয়েছেন ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো, গ্যারেথ বেল ও করিম বেনজেমার সবাই। ‘বিবিসি’ নামে পরিচিত এই আক্রমণ ত্রয়ীর অসাধারণ নৈপুণ্যে স্পোর্তিং গিহনকে ৫-১ গোলে হারিয়েছে রিয়াল মাদ্রিদ। লা লিগায় রোববার রাতে সহজ জয় পেলেও দুর্ভাবনা নিয়েই মাঠ ছাড়তে হয় স্পেনের সফলতম দলটিকে। ম্যাচের মাঝে চোট পেয়ে মাঠ ছাড়েন বেনজেমা ও বেল। দারুণ ছন্দে থাকা আক্রমণভাগের নৈপুণ্যে প্রথম ১৮ মিনিটেই ৪-০ গোলে এগিয়ে যায় রিয়াল মাদ্রিদ।
রোববার রাতে ঘরের মাঠের এই ম্যাচে রিয়ালের গোল উৎসবের শুরু সপ্তম মিনিটে। টনি ক্রুসের কর্নারে মার্কারকে ছিটকে লাফে অনেকটা এগিয়ে দারুণ হেডে দলকে এগিয়ে দেন দুর্দান্ত ফর্মে থাকা গ্যারেথ বেল। গত সপ্তাহে দেপোর্তিভো লা করুনার জালে হ্যাটট্রিক করা ওয়েলসের এই ফরোয়ার্ডের শেষ আট ম্যাচে এটি একাদশ গোল। লিগে এই মৌসুমে তার গোল হলো ১৩টি।
দুই মিনিট বাদে করিম বেনজেমার দুর্দান্ত পাসে প্রায় ৩৬০ ডিগ্রি ঘুরে ১৬ গজ দূর থেকে জোরালো এক হাফ ভলিতে লক্ষ্যভেদ করেন রোনালদো। ‘বিবিসি’ –এর তৃতীয় সদস্য বেনজেমারও গোল পেতে দেরি হয়নি। দ্বাদশ মিনিটে ডান দিক থেকে বেলের দারুণ ক্রসে চমৎকার এক সাইড ভলিতে স্কোরশিটে নাম লেখান ফ্রান্সের এই ফরোয়ার্ড।
খানিক বাদে নিজের দ্বিতীয় গোলে জয়টাও নিশ্চিত করে ফেলেন রোনালদো। অষ্টাদশ মিনিটে ডান দিক থেকে দানি কারবাহালের আড়াআড়ি পাসে আলতো টোকায় লক্ষ্যভেদ করেন পর্তুগিজ এই ফরোয়ার্ড। এবারের লা লিগায় রোনালদোর এটি ষষ্ঠদশ গোল।
৩৬তম মিনিটে হ্যাটট্রিক পূরণ হতে পারতো রোনালদোর। তবে তার আলতো টোকা এগিয়ে এসে ঠেকিয়ে দেন গোলরক্ষক। পরের মিনিটেই পাল্টা আক্রমণে গোল পেতে পারতো অতিথিরা। রাফায়েল ভারানে ডি-বক্সে প্রতিপক্ষের ক্রোয়াট মিডফিল্ডার আলেন হালিলোভিচকে ফেলে দিলে পেনাল্টির আবেদন করে স্পোর্তিং; কিন্তু রেফারি সাড়া দেননি। প্রথমার্ধেই স্কোরলাইন ৫-০ করেন বেনজেমা। ইসকোর বাড়ানো ডান পায়ে নিয়ন্ত্রণ নিয়ে ওই পায়ের টোকাতেই নিজের ষষ্ঠদশ গোলটি করেন ফরাসি এই স্ট্রাইকার। গোলদাতাদের তালিকায় রোনালদোর সঙ্গে যৌথভাবে শীর্ষে আছেন তিনি।
বিরতির খানিক আগে পায়ে ব্যথা পেয়ে মাঠ ছাড়েন প্রথম গোলদাতা বেল। দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে আরেকটি ধাক্কা খাওয়া থেকে বেঁচে যায় রিয়াল। রাগের বশে প্রতিপক্ষের মিডফিল্ডার নাচো কাসেসের পা মাড়িয়ে দিয়েছিলেন রোনালদো। তার ভাগ্য ভালো যে ঘটনাটা রেফারির চোখ এড়িয়ে যায়। ৬২তম মিনিটে একটি গোল শোধ করে স্পোর্তিং। দারুণ এক প্রতি-আক্রমণে গোলটি করেন স্প্যানিশ স্ট্রাইকার ইসমায়েল লোপেস। এর পরের মিনিটেই চোট পেয়ে মাঠ ছেড়ে যান জোড়া গোলদাতা বেনজেমা।
প্রথমার্ধেই পাঁচ গোলে এগিয়ে যাওয়ায় আরেকটি বিশাল ব্যবধানে জয়ের সম্ভাবনা জোরালো হয়েছিল গত মাসে রায়ো ভায়েকানোকে ১০-২ গোলে উড়িয়ে দেওয়া রিয়ালের। তবে বাকি সময়ে রোনালদো-হামেস রদ্রিগেসরা ব্যবধান বাড়াতে পারেননি। এই জয়ে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী বার্সেলোনাকে টপকে আপাতত লিগের দ্বিতীয় স্থানে উঠে এসেছে রিয়াল। জিদানের দলের পয়েন্ট ২০ ম্যাচে ৪৩। দুই ম্যাচ কম খেলা লুইস এনরিকের দলের পয়েন্ট ৪২।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :