দুপুর ১:৫৯, রবিবার, ২২শে জানুয়ারি, ২০১৭ ইং
/ ক্রিকেট / পারফরম্যান্স বিবেচনা করেই চূড়ান্ত দল
পারফরম্যান্স বিবেচনা করেই চূড়ান্ত দল
জানুয়ারি ২৪, ২০১৬

এশিয়া কাপ টি-টোয়েন্টি ও টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের জন্য ২৫ সদস্যের প্রাথমিক দল ঘোষণা করা হয়েছে আগেই। এবার জল্পনা-কল্পনা শুরু হয়েছে কারা থাকবেন আসন্ন এ দুটি বড় আসরে অংশ নিতে যাওয়া বাংলাদেশের চূড়ান্ত দলে। ২৫ সদস্যের দলে রাখা হয়েছে সাম্প্রতিক সময়ে জাতীয় দলে খেলা ও আশেপাশে থাকা প্রায় সকল ক্রিকেটারকেই। লেগস্পিনার জুবায়ের হোসেন লিখন ব্যতীত বাদ দেওয়া হয়নি কাউকেই। ইনজুরির কারণে অবশ্য ছিটকে গেছেন পেসার রুবেল হোসেন।
নতুনদের মধ্যে আছেন নুরুল হাসান সোহান, মুক্তার আলী, মোসাদ্দেক সৈকত, আবু হায়দার রনি, আরিফুল হক, মো: মিথুন, মোহাম্মদ শহীদ, কামরুল ইসলাম রাব্বিরাও।
নতুন-পুরনোদের মাঝ থেকে কিভাবে চূড়ান্ত করা হবে টাইগার স্কোয়াড, তার একটা ধারণা অবশ্য আগেই দিয়ে দিলেন জাতীয় দলের নির্বাচক nannuমিনহাজুল আবেদিন নান্নু। শেষমেষ কারা থাকছেন চূড়ান্ত দলে তার ইঙ্গিত না দিলেও গেল ওয়ালটন বাংলাদেশ-জিম্বাবুয়ে সিরিজে যারা ভালো করেছেন তাদের যে অগ্রাধিকার দেওয়া হবে সেটি স্পষ্ট তার কথায়, ‘জিম্বাবুয়ে সিরিজে যারা ভালো করেছে তাদের সম্ভাবনা বেশি থাকবে। টি-টোয়েন্টি ম্যাচগুলোয় যারা চাপের মাঝে সাহস রেখে মাঠে সাবলীল ছিলেন তারা দলে থাকার প্রতিযোগিতায় এগিয়ে থাকবে।’
এছাড়াও বিবেচনায় আসছে প্রস্ততি ম্যাচের পারফরম্যান্স। আগামী ২৮ ও ৩১ জানুয়ারি খুলনায় নিজেদের মধ্যে দু’টি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে প্রাথমিক দলে থাকা ক্রিকেটাররা। জিম্বাবুয়ে সিরিজ শেষে রোববার (২৪ জানুয়ারি) দুপুর থেকে খুলনার শেখ আবু নাসের স্টেডিয়ামে অনুশীলন ক্যাম্প শুরু করেছে চন্ডিকা হাথুরুসিংহের শিষ্যরা।
প্রস্তুতি ম্যাচের পারফরম্যান্সও বিবেচেনায় থাকবে বলে জানান মিনহাজুল আবেদিন, ‘প্রস্তুতি ম্যাচে কারা ভালো করলো সেটিও বিবেচনায় আসবে। প্রস্তুতি ম্যাচ শেষে ২৫ জন থেকে স্কোয়াড ২০ জনে নামিয়ে আনা হবে। এর পর এক সপ্তাহের বিশ্রামে যাবেন ক্রিকেটাররা। ফেব্রয়ারির দ্বিতীয় সপ্তাহ থেকে চট্টগ্রামে ২০ জনকে নিয়ে আবার শুরু হবে ক্যাম্প। এর পরই চূড়ান্ত স্কোয়াড।’



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :