সন্ধ্যা ৬:১৬, শুক্রবার, ২১শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং

এক নজরে

ব্যাট তুলে রেখে এবার রিয়ালিটি শো’তে অভিনয় করলেন বিশ্ব টেনিসের রাজা রজার ফেদেরার। ডিসকভারি চ্যানেলের একটি নতুন সিরিজে একসঙ্গে দেখা যাবে বিয়ার গ্রিলস ও রজার ফেদেরারকে। সিরিজের নাম- রানিং ওয়াইল্ড উইথ বিয়ার গ্রিলস। এটি মূলত রিয়ালিটি শো।

অভিনয় করতে গিয়ে নিজের অভিজ্ঞতা প্রসঙ্গে ফেদেরার বলেন, ‘টেনিস কোর্টে আমাকে অনেকে কঠিন প্লেয়ার হিসেবে দেখেছে। কিন্তু বিশ্বাস করুন, এই পাহাড় আর ভয়ঙ্কর জঙ্গলের মাঝে আমি প্রচণ্ড ভয়ে রয়েছি।’ আর ফেদেরারের মুখে কথাগুলো শুনে হেসে উঠেছিলেন বিয়ার গ্রিলস। প্রায় সঙ্গে সঙ্গে বলে উঠলেন, ‘হেলিকপ্টার থেকে এই পাহাড়টাকে দেখলে সুন্দরী বলে মনে হবে। কিন্তু এই পাহাড়ের মাটিতে পা রাখলেই বোঝা যাবে, এখানে একটা রাত কাটানো কতটা ভয়ঙ্কর! রজার ফেদেরার, এবার জীবনের সব থেকে কঠিন ম্যাচটার জন্য রেডি হোন।’

এটি মূলত রিয়ালিটি শো। সিরিজের নাম- রানিং ওয়াইল্ড উইথ বিয়ার গ্রিলস। সুইস আল্পসের একটা অংশে একসঙ্গে থাকবেন দুজনে। বলা ভাল, ‘সারভাইভ’ করবেন। সিরিজের শুটিং হয়ে গেছে। সেখানে একটা সময় বিয়ার গ্রিলসের সঙ্গে পাহাড়ে চলতে চলতে বরফের নিচে থাকা মরা মাছের চোখ খুবলে খেতে হয়েছে টেনিস সম্রাট ফেদেরারকে। ঠিক যেমন বিয়ার গ্রিলস পাহাড়ে-জঙ্গলে থাকাকালীন করে থাকেন আর কী!

ফেদেরারকে কখনও আবার বরফের মতো ঠাণ্ডা পানিতে দাঁড়িয়ে থাকতে হয়েছে। এত ঝক্কি পোহানোর পর ফেদেরার বলছেন, আমি সব সময় টিভি শো-তে বিয়ারকে এসব আজেবাজে জিনিস খেতে দেখেছি। কিন্তু এগুলো কখনও আমাকেও খেতে হবে, সেটা ভাবিনি। বরং মনে মনে ভাবতাম, জীবনে কোনোদিন খেতে না পেলেও এগুলো খাব না।

রিয়ালিটি শো’তে ফেদেরার

ব্যাট তুলে রেখে এবার রিয়ালিটি শো’তে অভিনয় করলেন বিশ্ব টেনিসের রাজা রজার ফেদেরার। ডিসকভারি চ্যানেলের একটি নতুন সিরিজে একসঙ্গে দেখা যাবে বিয়ার গ্রিলস ও রজার ফেদেরারকে। সিরিজের নাম- রানিং ওয়াইল্ড উইথ বিয়ার গ্রিলস। এটি মূলত রিয়ালিটি শো।

অভিনয় করতে গিয়ে নিজের অভিজ্ঞতা প্রসঙ্গে ফেদেরার বলেন, ‘টেনিস কোর্টে আমাকে অনেকে কঠিন প্লেয়ার হিসেবে দেখেছে। কিন্তু বিশ্বাস করুন, এই পাহাড় আর ভয়ঙ্কর জঙ্গলের মাঝে আমি প্রচণ্ড ভয়ে রয়েছি।’ আর ফেদেরারের মুখে কথাগুলো শুনে হেসে উঠেছিলেন বিয়ার গ্রিলস। প্রায় সঙ্গে সঙ্গে বলে উঠলেন, ‘হেলিকপ্টার থেকে এই পাহাড়টাকে দেখলে সুন্দরী বলে মনে হবে। কিন্তু এই পাহাড়ের মাটিতে পা রাখলেই বোঝা যাবে, এখানে একটা রাত কাটানো কতটা ভয়ঙ্কর! রজার ফেদেরার, এবার জীবনের সব থেকে কঠিন ম্যাচটার জন্য রেডি হোন।’

এটি মূলত রিয়ালিটি শো। সিরিজের নাম- রানিং ওয়াইল্ড উইথ বিয়ার গ্রিলস। সুইস আল্পসের একটা অংশে একসঙ্গে থাকবেন দুজনে। বলা ভাল, ‘সারভাইভ’ করবেন। সিরিজের শুটিং হয়ে গেছে। সেখানে একটা সময় বিয়ার গ্রিলসের সঙ্গে পাহাড়ে চলতে চলতে বরফের নিচে থাকা মরা মাছের চোখ খুবলে খেতে হয়েছে টেনিস সম্রাট ফেদেরারকে। ঠিক যেমন বিয়ার গ্রিলস পাহাড়ে-জঙ্গলে থাকাকালীন করে থাকেন আর কী!

ফেদেরারকে কখনও আবার বরফের মতো ঠাণ্ডা পানিতে দাঁড়িয়ে থাকতে হয়েছে। এত ঝক্কি পোহানোর পর ফেদেরার বলছেন, আমি সব সময় টিভি শো-তে বিয়ারকে এসব আজেবাজে জিনিস খেতে দেখেছি। কিন্তু এগুলো কখনও আমাকেও খেতে হবে, সেটা ভাবিনি। বরং মনে মনে ভাবতাম, জীবনে কোনোদিন খেতে না পেলেও এগুলো খাব না।

ক্রিকেট

ভারতের কাছে পাকিস্তানের আত্মসমর্পণ

এই ম্যাচের ফল এশিয়া কাপে কোন প্রভাব ফেলবে না। হংকংকে হারিয়ে আগেই সুপার ফোর নিশ্চিত করেছে দুই দলই। কিন্তু ম্যাচটা যখন ভারত আর পাকিস্তানের তখন অনেক কিছুই এসে যায়। মর্যাদার ম্যাচে কে-ই বা হারতে চায়! দুবাইয়ে ক্রিকেটের সেই ‘ক্ল্যাসিকো’ দাপটের সঙ্গেই জিতে নেয় ভারত। দুবাই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে, পাকিস্তানকে ৮ উইকেটে হারিয়েছে ভারত।

টস হিতে ব্যাট করে ৪৩.১ ওভারে মাত্র ১৬২ রানেই গুটিয়ে পাকিস্তান। জবাবে মাত্র ২৯ ওভারে ২ উইকেট হারিয়েই লক্ষ্যে পৌঁছে যায় ভারত। দ্রুত দুই উইকেট তুলে শুরুতেই পাকিস্তানকে চাপে ফোলে দেন ভুবনেশ্বর কুমার। বাবর আজম ও শোয়েব মালিকের জুটিতে মাঝে শুরুর ধাক্কা সামাল দেয়ার আভাস এসেছিল। কিন্তু এই জুটি বিচ্ছিন্ন হতেই ধ্বসে পড়ে পাকিস্তানের ব্যাটিং লাইন আপ।

দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৪৭ রান করেন বাবর। শোয়েব মালিক করেন ৪৩ রান।

জবাবে ২৯ ওভারেই জয় পায় রোহিত শর্মার দল। যাতে বড় অবদান অধিনায়কেরই। আরেক ওপেনার ধাওয়ানকে নিয়ে ৮৬ রানের জুটিই জয়ের ভিত গড়ে দেয়। হংকং ম্যাচে ম্লান রোহিত (৫২) ফিফটি পেলেও সেদিনের সেঞ্চুরিয়ান ধাওয়ান (৪৬) বঞ্চিত হয়েছেন মাত্র ৪ রানের জন্য। বাকি পথটা রাইডুকে নিয়ে পেরিয়ে যান দীনেশ কার্তিক। দুজনেই অপরাজিত থাকেন ৩১ রানে।

ফুটবল

জায়ান্টদের জয়ের দিনে রোনালদোর লাল কার্ড

লাল কার্ড দেখে ইউভেন্টাসের হয়ে উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগ মিশন শুরু করলেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। তার লাল কার্ডের ম্যাচে দশ জন নিয়েও ভ্যালেন্সিয়াকে ২-০ গোলে পরাজিত করে জুেভন্টাস। অন্যম্যাচে, গেলোবারের সেমিফাইনালিস্ট রোমাকে ৩-০ গোলে হারিয়ে শিরোপা ধরে রাখার মিশন শুরু করেছে হ্যাটট্রিক চ্যাম্পিয়ন রিয়াল মাদ্রিদ। এদিকে, ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড বড় জয় পেলেও অলিম্পিক লিঁওর কাছে হেরে গেছে ম্যানচেস্টার সিটি।

নতুন ক্লাবে যোগ দেয়ার পর প্রথমবার স্পেনে এলেন পর্তুগিজ তারকা ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। ষষ্ঠবার চ্যাম্পিয়ন্স লিগ শিরোপা জয়ের মিশনে জুভেন্টাসের জার্সিতে এই টুর্নামেন্টে অভিষেক তার। আলো ছড়ানোর ইঙ্গিতও দেন শুরু থেকেই বেশ কয়েকটি আক্রমণের জন্ম দিয়ে।

কিন্তু বিধি বাম। ম্যাচের বয়স আধঘন্টা না পেরোতেই ভ্যালেন্সিয়া ডিফেন্ডারের সাথে অশোভন আচরণের অজুহাতে লাল কার্ড দেখান জার্মান রেফারি ফেলিক্স ব্রিচ। টিভি রিপ্লেতে অবশ্য অত বড় অপরাধ দেখা যায়নি পাঁচবারের ব্যালন ডি অর জয়ীর। রিয়াল ছাড়ার পর প্রথমবার স্পেনের মাটিতে খেলতে এসে এমন অপমানে চোখের জল ধরে রাখতে পারেননি পর্তুগিজ মহাতারকা।

দশ জন নিয়েও একের পর এক আক্রমণ করে গেছে জুভেন্টাস। তাদের আক্রমণবৃষ্টি রুখতে গিয়ে বিরতির আগে-পরে দু’বার পেনাল্টি দিয়ে বসে ভ্যালেন্সিয়া। মিরালেম জ্যানিক দু’বারই সফল হওয়ায় জয় পেতে কোনো সমস্যাই হয়নি ম্যাসিমিলিয়ানো অ্যালিগ্রির দলের।

এদিকে, নয় বছর পর রোনালদোকে ছাড়া চ্যাম্পিয়ন্স লিগ মিশনের শুরুটা দুর্দান্ত হলো ১৩ বারের চ্যাম্পিয়ন রিয়াল মাদ্রিদের। ঘরের মাঠ সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে আগের আসরের সেমিফাইনালিস্ট রোমার বিপক্ষে শুরু থেকেই ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ নিয়ে নেয় তারা। তাদের মুহুর্মুহু আক্রমণে নাজেহাল হয়ে পড়ে রোমার রক্ষণভাগ। দশ মিনিটের মধ্যেই দু’বার এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ হারায় লা ব্লাঙ্কোরা। তবে বিরতির আগেই ইসকোর গোলে লিড নেয় রিয়াল।

গোটা ম্যাচে অন্তত ত্রিশবার আক্রমণ করেছে লোপেতেগির দল। কিন্তু ইতালিয়ান ক্লাবটির রক্ষণভাগ আর গোলরক্ষক রবিন ওলসেনের দৃঢ়তায় রক্ষা পায় তারা। তবে ৫৮ মিনিটে গ্যারেথ বেলের দারুণ এক গোলে ব্যবধান দ্বিগুণ করার পর ইনজুরি সময়ে ম্যারিয়ানোর গোলে বড় জয় নিশ্চিত হয় স্বাগতিকদের।

অন্যদিকে, দুই ইংলিশ জায়ান্ট ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড আর সিটি দেখেছে দু’রকম রাত। পল পগবার জোড়া গোলে প্রতিপক্ষের মাঠে যেখানে তিন গোলের জয় পেয়েছে ম্যান ইউ; সেখানে ঘরের মাঠে অলিম্পিক লিঁওর কাছে হেরে গেছে পেপ গার্দিওলার ম্যান সিটি।


ভিডিও
প্রথম রাউন্ড থেকেই হালেপের বিদায়
জার্মানিকে বিদায় করে সেমিফাইনালে জাপান
More Video
ফেইসবুক

হ্যান্ডবল
গলফ
দাবা
হকি
লন-টেনিস
আর্ন্তজাতিক
সাক্ষাৎকার
সাঁতার
এ্যাথলেটিকস্