রাত ৯:০৯, বুধবার, ১৩ই ডিসেম্বর, ২০১৭ ইং

এক নজরে

প্রস্তাবিত ২০১৯ থেকে ২০২৩ সালের ফিউচার টু্যর প্রোগ্রামে (এফটিপি) ৩৫টি টেস্ট খেলবে বাংলাদেশ। সব ফরমেট মিলিয়ে সংখ্যাটা দাঁড়াবে ১২২ ম্যাচে। তবে এই চার বছরে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে কোনো টেস্ট নেই টাইগারদের।

তবে বাংলাদেশের জন্য সুখবরও আছে। নতুন এফটিপিতে বেশিরভাগ টেস্ট খেলুড়ে দেশ আগের থেকে কম টেস্ট পেলেও বাংলাদেশ বছরে দুটি করে টেস্ট বেশি পাচ্ছে। বর্তমান এফটিপিতে পাঁচ বছরে বাংলাদেশের টেস্ট ৩৩টি। প্রস্তাবিত নতুন এফটিপিতে চার বছরেই ৩৫টি টেস্ট খেলবে টাইগাররা।

বিশেষ করে বিগ থ্রি-ইংল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া আর ভারতের পরই এফটিপিতে সবচেয়ে বেশি টেস্ট রয়েছে বাংলাদেশের। এর মধ্যে ভারতের বিপক্ষে আছে পূর্ণাঙ্গ হোম এন্ড অ্যাওয়ে সিরিজও।

গত এক বছর ধরেই এই এফটিপি নিয়ে পরিকল্পনা করে যাচ্ছে টেস্টের পূর্ণ সদস্যরা। চলতি মাসে সিঙ্গাপুরে বিভিন্ন দেশের ক্রিকেট বোর্ডের সদস্যরা মিলে নতুন এফটিপি বাস্তবায়নের নীতিগত সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। এফটিপির নির্ধারিত চার বছর ২০১৯ সালের মে মাস থেকে ২০২৩ সালের মে পর্যন্ত।

আগামী ফেব্রুয়ারিতে আইসিসির নির্বাহী কমিটির সভায় এই প্রস্তাবনা চূড়ান্ত রূপ লাভ করার কথা। এরপর আগামী বছরের জুনে আইসিসির বার্ষিক সভায় সেটা উপস্থাপন করা হবে।

নতুন এফটিপিতে নেই কোনো ভারত-পাকিস্তান দ্বিপক্ষীয় সিরিজ। নেই ইংল্যান্ডের বিপক্ষে বাংলাদেশের কোনো টেস্ট। টেস্ট লিগের নতুন নিয়মে প্রতিটি দলের দুই বছরের মধ্যে ছয়টি দলের বিপক্ষে খেলা বাধ্যতামূলক। তবে প্রতিটি প্রতিপক্ষের বিপক্ষেই খেলতে হবে, এমন বাধ্যবোধকতা নেই।

খুব বেশি সিরিজ নেই ট্রান্স-তাসমান প্রতিবেশীদের মধ্যেও। চার বছরে অস্ট্রেলিয়া আর নিউজিল্যান্ড পরস্পরের বিপক্ষে খেলবে কেবল একটি দুই টেস্টের সিরিজ।

ক্রিকেটপ্রেমীরা নিয়মিত দেখতে পাবেন না ভারত-শ্রীলঙ্কা টেস্ট দ্বৈরথও। চার বছরে এই দুই দলের মধ্যে রয়েছে মাত্র একটি টেস্ট সিরিজ।

নতুন এফটিপিতে সবচেয়ে বেশি ১৫৯টি ম্যাচ খেলবে ভারত। ওয়েস্ট ইন্ডিজ খেলবে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ১৪৬টি। এরপরই রয়েছে ইংল্যান্ড, ১৩০টি ম্যাচ খেলবে ক্রিকেটের জনকরা।

রাশিয়া বিশ্বকাপের সময়সূচি

গত দুটো ইউরো চ্যাম্পিয়ন স্পেন ‌ও পর্তুগাল পড়েছে একই গ্রুপে। এরআগে কখন‌ও এমনটা হয়নি। তবে উদ্বোধনী ম্যাচে আগামী ১৪ জুন স্বাগতিক রাশিয়ার প্রতিপক্ষ এশিয়ান প্রতিনিধি সৌদি আরব।

রাশিয়া বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্ব

তারিখ ও বার              সময়         গ্রুপ            ম্যাচ                        স্থান

১৪ জুন, বৃহস্পতিবার       রাত ৯টা         এ         রাশিয়া-সৌদি আরব         মস্কো

১৫ জুন, শুক্রবার        সন্ধ্যা ৬টা          এ        মিশর-উরুগুয়ে               একাতেরিনবুর্গ

১৫ জুন, শুক্রবার       রাত ৯টা            বি       মরক্কো-ইরান                    সেন্ট পিটার্সবার্গ

১৫ জুন, শুক্রবার       সন্ধ্যা ১২টা         বি         পর্তুগাল-স্পেন                সোচি

১৬ জুন, শনিবার      বিকাল ৪টা          সি      ফ্রান্স-অস্ট্রেলিয়া             কাজান

১৬ জুন, শনিবার       সন্ধ্যা ৭টা        ডি       আর্জেন্টিনা-আইসল্যান্ড        মস্কো

১৬ জুন, শনিবার       রাত ১০টা     সি        পেরু-ডেনমার্ক               সারানস্ক

১৬ জুন, শনিবার       রাত ১টা      ডি         ক্রোয়েশিয়া-নাইজেরিয়া          কালিনিনগ্রাদ

১৭ জুন, রোববার     সন্ধ্যা ৬টা       ই             কোস্টারিকা-সার্বিয়া           সামারা

১৭ জুন, রোববার        রাত ৯টা     এফ       জার্মানি-মেক্সিকো                   মস্কো

১৭ জুন, রোববার     রাত ১২টা         ই        ব্রাজিল-সুইজারল্যান্ড            রস্তোভ

১৮ জুন, সোমবার    সন্ধ্যা ৬টা    এফ          সুইডেন-দক্ষিণ কোরিয়া      নিজনি নভগোরোদ

১৮ জুন, সোমবার     রাত ৯টা     জি        বেলজিয়াম-পানামা           সোচি

১৮ জুন, সোমবার   রাত ১২টা     জি        তিউনিশিয়া-ইংল্যান্ড        ভলগোগ্রাদ

১৯ জুন, মঙ্গলবার     সন্ধ্যা ৬টা     এইচ      পোল্যান্ড-সেনেগাল         মস্কো

১৯ জুন, মঙ্গলবার    রাত ৯টা     এইচ      কলম্বিয়া-জাপান          সারানস্ক

১৯ জুন, মঙ্গলবার      রাত ১২টা        এ        রাশিয়া-মিশর    সেন্ট পিটার্সবার্গ

২০ জুন, বুধবার       সন্ধ্যা ৬টা       বি        পর্তুগাল-মরক্কো        মস্কো

২০ জুন, বুধবার       রাত ৯টা       এ          উরুগুয়ে-সৌদি আরব       রস্তোভ

২০ জুন, বুধবার         রাত ১২টা        বি         ইরান-স্পেন           কাজান

২১ জুন, বৃহস্পতিবার    রাত ৯টা         সি          ফ্রান্স-পেরু        একাতেরিনবুর্গ

২১ জুন, বৃহস্পতিবার      সন্ধ্যা ৬টা         সি        ডেনমার্ক-অস্ট্রেলিয়া       সামারা

২১ জুন, বৃহস্পতিবার        রাত ১২টা       ডি        আর্জেন্টিনা-ক্রোয়েশিয়া        নিজনি নভগোরোদ

২২ জুন, শুক্রবার          সন্ধ্যা ৬টা        ই        ব্রাজিল-কোস্টারিকা           সেন্ট পিটার্সবার্গ

২২ জুন, শুক্রবার            রাত ৯টা         ডি      নাইজেরিয়া-আইসল্যান্ড        ভলগোগ্রাদ

২২ জুন, শুক্রবার          রাত ১২টা         ই            সার্বিয়া-সুইজারল্যান্ড      কালিনিনগ্রাদ

২৩ জুন, শনিবার         সন্ধ্যা ৬টা        জি         বেলজিয়াম-তিউনিশিয়া          মস্কো

২৩ জুন, শনিবার        রাত ৯টা      এফ             জার্মানি-সুইডেন              সোচি

২৩ জুন, শনিবার        রাত ১২টা       এফ          দক্ষিণ কোরিয়া-মেক্সিকো       রস্তোভ

২৪ জুন, রোববার      সন্ধ্যা ৬টা       জি        ইংল্যান্ড-পানামা         নিজনি নভগোরোদ

২৪ জুন, রোববার      রাত ৯টা      এইচ        জাপান-সেনেগাল      একাতেরিনবুর্গ

২৪ জুন, রোববার      রাত ১২টা       এইচ      পোল্যান্ড-কলম্বিয়া       কাজান

২৫ জুন, সোমবার      রাত ৮টা     এ         উরুগুয়ে-রাশিয়া          সামারা

২৫ জুন, সোমবার     রাত ৮টা      এ       সৌদি আরব-মিশর     ভলগোগ্রাদ

২৫ জুন, সোমবার    রাত ১২টা       বি       ইরান-পর্তুগাল      সারানস্ক

২৫ জুন, সোমবার    রাত ১২টা    বি      স্পেন-মরক্কো          কালিনিনগ্রাদ

২৬ জুন, মঙ্গলবার      রাত ৮টা     সি        ডেনমার্ক-ফ্রান্স         মস্কো

২৬ জুন, মঙ্গলবার      রাত ৮টা       সি       অস্ট্রেলিয়া-পেরু        সোচি

২৬ জুন, মঙ্গলবার      রাত ১২টা       ডি       নাইজেরিয়া-আর্জেন্টিনা       সেন্ট পিটার্সবার্গ

২৬ জুন, মঙ্গলবার    রাত ১২টা          ডি        আইসল্যান্ড-ক্রোয়েশিয়া        রস্তোভ

২৭ জুন, বুধবার          রাত ৮টা        এফ       দক্ষিণ কোরিয়া-জার্মানি        কাজান

২৭ জুন, বুধবার        রাত ৮টা         এফ             মেক্সিকো-সুইডেন          একাতেরিনবুর্গ

২৭ জুন, বুধবার          রাত ১২টা         ই        সার্বিয়া-ব্রাজিল       মস্কো

২৭ জুন, বুধবার       রাত ১২টা     ই             সুইজারল্যান্ড-কোস্টারিকা        নিজনি নভগোরোদ

২৮ জুন, বৃহস্পতিবার       রাত ৮টা      এইচ       জাপান-পোল্যান্ড        ভলগোগ্রাদ

২৮ জুন, বৃহস্পতিবার        রাত ৮টা     এইচ       সেনেগাল-কলম্বিয়া       সামারা

২৮ জুন, বৃহস্পতিবার    রাত ১২টা       জি       ইংল্যান্ড-বেলজিয়াম       কালিনিনগ্রাদ

২৮ জুন, বৃহস্পতিবার       রাত ১২টা      জি         পানামা-তিউনিশিয়া         সারানস্ক

শেষ ষোলো

৩০ জুন, শনিবার            রাত ৮টা       সি ১-ডি ২                   (ম্যাচ-৫০)            কাজান

৩০ জুন, শনিবার         রাত ১২টা        এ ১-বি ২               (ম্যাচ ৪৯)            সোচি

১ জুলাই, রোববার         রাত ৮টা          বি ১-এ ২          (ম্যাচ ৫১)         মস্কো

১ জুলাই, রোববার          রাত ১২টা        ডি ১-সি ২        (ম্যাচ ৫২)       নিজনি নভগোরোদ

২ জুলাই, সোমবার         রাত ৮টা         ই ১-এফ ২        (ম্যাচ ৫৩)         সামারা

২ জুলাই, সোমবার       রাত ১২টা          জি ১-এইচ ২      (ম্যাচ ৫৪)         রস্তোভ

৩ জুলাই, মঙ্গলবার       রাত ৮টা          এফ ১-ই ২         (ম্যাচ ৫৫)        সেন্ট পিটার্সবার্গ

৩ জুলাই, মঙ্গলবার         রাত ১২টা          এইচ ১-জি ২      (ম্যাচ ৫৬)        মস্কো

কোয়ার্টার-ফাইনাল

৬ জুলাই, শুক্রবার        রাত ৮টা     ম্যাচ ৪৯ বিজয়ী-ম্যাচ ৫০ বিজয়ী      (ম্যাচ-৫৭)        নিজনি নভগোরোদ

৬ জুলাই, শুক্রবার      রাত ১২টা    ম্যাচ ৫৩ বিজয়ী-ম্যাচ ৫৪ বিজয়ী     (ম্যাচ-৫৮)      কাজান

৭ জুলাই, শনিবার     রাত ৮টা       ম্যাচ ৫৫ বিজয়ী-ম্যাচ ৫৬ বিজয়ী   (ম্যাচ-৬০)     সামারা

৭ জুলাই, শনিবার    রাত ১২টা      ম্যাচ ৫১ বিজয়ী-ম্যাচ ৫২ বিজয়ী      (ম্যাচ-৫৯)      সোচি

সেমি-ফাইনাল

১০ জুলাই, মঙ্গলবার      রাত ১২টা        ম্যাচ ৫৭ বিজয়ী-ম্যাচ ৫৮ বিজয়ী      (ম্যাচ-৬১)    সেন্ট পিটার্সবার্গ

১১ জুলাই, বুধবার      রাত ১২টা      ম্যাচ ৫৯ বিজয়ী-ম্যাচ ৬০ বিজয়ী     (ম্যাচ-৬২)       মস্কো

তৃতীয় স্থান নির্ধারণী ম্যাচ

১৪ জুলাই, শনিবার      রাত ৮টা      সেন্ট পিটার্সবার্গ

ফাইনাল

১৫ জুলাই, রোববার        রাত ৯টা         মস্কো

 

ক্রিকেট

চার বছরে ৩৫ টেস্টসহ ১২২ ম্যাচ বাংলাদেশের

প্রস্তাবিত ২০১৯ থেকে ২০২৩ সালের ফিউচার টু্যর প্রোগ্রামে (এফটিপি) ৩৫টি টেস্ট খেলবে বাংলাদেশ। সব ফরমেট মিলিয়ে সংখ্যাটা দাঁড়াবে ১২২ ম্যাচে। তবে এই চার বছরে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে কোনো টেস্ট নেই টাইগারদের।

তবে বাংলাদেশের জন্য সুখবরও আছে। নতুন এফটিপিতে বেশিরভাগ টেস্ট খেলুড়ে দেশ আগের থেকে কম টেস্ট পেলেও বাংলাদেশ বছরে দুটি করে টেস্ট বেশি পাচ্ছে। বর্তমান এফটিপিতে পাঁচ বছরে বাংলাদেশের টেস্ট ৩৩টি। প্রস্তাবিত নতুন এফটিপিতে চার বছরেই ৩৫টি টেস্ট খেলবে টাইগাররা।

বিশেষ করে বিগ থ্রি-ইংল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া আর ভারতের পরই এফটিপিতে সবচেয়ে বেশি টেস্ট রয়েছে বাংলাদেশের। এর মধ্যে ভারতের বিপক্ষে আছে পূর্ণাঙ্গ হোম এন্ড অ্যাওয়ে সিরিজও।

গত এক বছর ধরেই এই এফটিপি নিয়ে পরিকল্পনা করে যাচ্ছে টেস্টের পূর্ণ সদস্যরা। চলতি মাসে সিঙ্গাপুরে বিভিন্ন দেশের ক্রিকেট বোর্ডের সদস্যরা মিলে নতুন এফটিপি বাস্তবায়নের নীতিগত সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। এফটিপির নির্ধারিত চার বছর ২০১৯ সালের মে মাস থেকে ২০২৩ সালের মে পর্যন্ত।

আগামী ফেব্রুয়ারিতে আইসিসির নির্বাহী কমিটির সভায় এই প্রস্তাবনা চূড়ান্ত রূপ লাভ করার কথা। এরপর আগামী বছরের জুনে আইসিসির বার্ষিক সভায় সেটা উপস্থাপন করা হবে।

নতুন এফটিপিতে নেই কোনো ভারত-পাকিস্তান দ্বিপক্ষীয় সিরিজ। নেই ইংল্যান্ডের বিপক্ষে বাংলাদেশের কোনো টেস্ট। টেস্ট লিগের নতুন নিয়মে প্রতিটি দলের দুই বছরের মধ্যে ছয়টি দলের বিপক্ষে খেলা বাধ্যতামূলক। তবে প্রতিটি প্রতিপক্ষের বিপক্ষেই খেলতে হবে, এমন বাধ্যবোধকতা নেই।

খুব বেশি সিরিজ নেই ট্রান্স-তাসমান প্রতিবেশীদের মধ্যেও। চার বছরে অস্ট্রেলিয়া আর নিউজিল্যান্ড পরস্পরের বিপক্ষে খেলবে কেবল একটি দুই টেস্টের সিরিজ।

ক্রিকেটপ্রেমীরা নিয়মিত দেখতে পাবেন না ভারত-শ্রীলঙ্কা টেস্ট দ্বৈরথও। চার বছরে এই দুই দলের মধ্যে রয়েছে মাত্র একটি টেস্ট সিরিজ।

নতুন এফটিপিতে সবচেয়ে বেশি ১৫৯টি ম্যাচ খেলবে ভারত। ওয়েস্ট ইন্ডিজ খেলবে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ১৪৬টি। এরপরই রয়েছে ইংল্যান্ড, ১৩০টি ম্যাচ খেলবে ক্রিকেটের জনকরা।

ফুটবল

বিবিসি’ ত্রয়ীকে একসঙ্গে চান রোনালদো

ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো, করিম বেনজেমা আর গ্যারেথ বেল-রিয়াল মাদ্রিদের স্বপ্নের 'বিবিসি' ত্রয়ী অনেকটা দিন মাঠে অনুপস্থিত। কারও অফফর্ম তো, কারও চোট। একসঙ্গে তিন তারকার জ্বলে উঠা হচ্ছে না। তবে এবার সেই সম্ভাবনা দেখা যাচ্ছে। রিয়াল সুপারস্টার রোনালদো মনে করছেন, তেমনটা হলে দারুণ হবে।

পাঁচবারের ব্যালন ডি'অর জয়ী রোনালদো ভীষণ আশাবাদী, আবারও বেল-বেনজেমাকে সঙ্গে নিয়ে মাঠ কাঁপাতে পারবেন তিনি। আজ ক্লাব বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে আল জাজিরার বিপক্ষে খেলতে নামবে রিয়াল। যে ম্যাচে ইনজুরি দুর্ভাবনা নেই তাদের।

রোনালদো তাই আশা করছেন, বেনজেমা-বেলকে নিয়ে মাঠ দাপিয়ে বেড়াতে পারবেন। পর্তুগিজ যুবরাজ বলেন, 'আমি পরিপূর্ণ স্কোয়াডটা দেখতে চাই। শুধু করিম আর গেজ (বেল) নয়। আমাদের দলে এখন ইনজুরি সমস্যা নেই, এটা ভালো লক্ষণ। সবাই একসঙ্গে খেলতে পারার লক্ষণ। যদি 'বিবিসি' আবারও একসঙ্গে খেলতে পারে, তবে দারুণ হবে।'

ক্লাব বিশ্বকাপে প্রতিযোগিতা খুব বেশি নয়। অনেকেই তাই এটাকে তেমন গুরুত্ব দিচ্ছেন না। তবে রোনালদোর মত অন্যরকম। তিনি বলেন, 'এটা আমাদের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ টুর্নামেন্ট। এটা খেলতে পেরে আমরা আনন্দিত। আমরা এখানে খেলছি, কারণ আমরা চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি জেতা দল।'

কোচ জিনেদিন জিদানের মতো ক্লাব বিশ্বকাপের শিরোপা জেতার লক্ষ্য ঠিক করেছেন রোনালদো। এই প্রতিযোগিতাটা তার ভালো লাগে বলেও জানিয়েছেন এই রিয়াল তারকা।


ভিডিও
ICC #WT20 England Women vs Bangladesh Women Match Highlights
New Zealand vs Bangladesh world T 20 2016 Highlights HD
More Video
ফেইসবুক

হ্যান্ডবল
গলফ
দাবা
হকি
লন-টেনিস
আর্ন্তজাতিক
সাক্ষাৎকার
সাঁতার
এ্যাথলেটিকস্